উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলের পানি ও ভারী বর্ষণে নেত্রকোণা প্লাবিত

প্রকাশিত: ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৯, ২০২২

আশিকুর রহমান, নেত্রকোণা প্রতিনিধি।।

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও গত কয়েক দিনের টানা ভারী বর্ষণে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে নেত্রকোণার কলমাকান্দা, দুর্গাপুর ও বারহাট্টাসহ ৬ টি উপজেলার ৩৯ টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়ে বন্যার ভয়াবহ রুপ দেখা দিয়েছে। সোমেশ্বরী নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে করে পানিবন্দি হয়ে আছে লক্ষাধিক মানুষ।

ঢলের পানিতে অসংখ্য রাস্তাঘাট, ঘরবাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্লাবিত হয়েছে। অসংখ্য পুকুর তলিয়ে গেছে পানিতে, ভেসে গেছে মাছ। নেই কোনো বাড়িঘড়ের অস্থিত্ব।বাধ্য হয়েই জীবন বাঁচাতে বাড়িঘর ছেড়ে ভিবিন্ন জায়গায় আশ্রয় গ্রহন করছেন তারা।

কলমাকান্দা উপজেলায় সরজমিনে দেখা যায়, এক মর্মান্তিক ভয়াবহ বন্যার চিত্র। হু হু করে বেড়েই চলেছে বন্যার পানি। বন্যায় প্লাবিত মানুষগুলা গৃহপালিত গরু ছাগল নিয়ে কোনো রকম ভাবে আশ্রয় গ্রহন করেছে স্থানীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে।

এছাড়াওকলমাকান্দা উপজেলায় বন্যার ভয়াবহতা বৃদ্ধি পাওয়ায় সম্পূর্ণভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং নেটওয়ার্কিং ব্যাবস্থাও খুবই খারাপ অবস্থায় রয়েছে।

চারদিকে ঘুরে দেখা যায়,কলমাকান্দা উপজেলার প্রধান সড়কগুলো ডুবে আছে। এছাড়াও চাঁনপুর, রাজাপুর,কলেজ রোড, কালীহালা, ডাইয়ারকান্দা, নাগ্নীপাড়া, বিশর পাশা,এতিমখানা,চিনাহালা,নাজিরপুর সহ উপজেলার প্রধান প্রধান রাস্তাগুলো সহ গ্রামগুলো বন্যায় প্লাবিত হয়ে আছে।গ্রাম গুলোর বেশির ভাগ মানুষই কলমাকান্দা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, কলমাকান্দা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কলমাকান্দা সরকারি কলেজ সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে আশ্রায়িত আছেন

এ সময় বন্যায় প্লাবিত হওয়া মানুষগুলোর পাশে জনপ্রতিনিধিদের খুব জরুরী মনে করছেন তারা।