দিনাজপুর টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট সকল শিক্ষার্থীদের আয়োজনে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

প্রকাশিত: ১১:৪০ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০২২

মোঃ আসাদুল্লাহ আল গালিব, দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি।।

মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) ও উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা (রাঃ) কে নিয়ে ভারতের বিজেপি নেতাদের অপমাননার প্রতিবাদে দিনাজপুর টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট সকল শিক্ষার্থীদের আয়োজনে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার (১২ ই জুন) দুপুর ১২ টায় দিনাজপুর টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পরে মিছিল কলেজ ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে দিনাজপুর শহরের পুলহাট বাজার হয়ে দিনাজপুর গোর-এ শহীদ মিনার (বড়মাঠ), দিনাজপুর জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে সামনে দিয়ে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে মানববন্ধন করেন। মানববন্ধন শেষে দিনাজপুর কালীতলা (থানা মোড়), মালদাহ্পট্টি, দক্ষিণ বালুবাড়ি, দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, ফুলবাড়ি বাস স্ট্যান্ড সড়ক প্রদক্ষিণ করে টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট ক্যাম্পাসের শহীদ মিনার চত্বরে এসে মিছিল শেষ হয়।

মিছিল ও মানববন্ধনে প্রায় পাঁচ শতাধিকের অধিক টেক্সটাইল শিক্ষার্থী, মাদরাসা ছাত্র ও মুসল্লীসহ স্থানীয় সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে ধর্মপ্রাণ মুসলিম শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে মুসলমান সম্প্রদায়ের সর্বশ্রেষ্ঠ নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ও তার প্রিয় সহধর্মিনী মা আয়েশা সিদ্দিকা (রাঃ) কে উদ্দেশ্য করে ভারতের বিজেপি নেতাদের দেওয়া বক্তব্যের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান মিছিলে অংশগ্রহণকারী সকল শিক্ষার্থী ও মুসল্লীরা।

মিছিল ও মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আমরা মনে করি ভারতের কোন একক গোষ্ঠী মহানবী (সাঃ) কে কটূক্তি করেনি। বরং এখানে ভারত সরকারের সরাসরি ইন্ধনে আমাদের নবীকে নিয়ে কটূক্তি করা হয়েছে। এ ধরনের দুঃসাহসের জন্য মোদি সরকারকে বিশ্বের কাছে জবাবদিহি করতে হবে। একের পর এক ভারত সরকার ইসলাম বিদ্বেষী আচরণ করেই যাচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। দোষীদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবি করছি। একইসঙ্গে অসাম্প্রদায়িকতা বজায় রেখে ভারতে মুসলিমদের শান্তি-শৃঙ্খল ভাবে বসবাস করার আহ্বান জানাই।

বক্তারা আরও বলেন, প্রতিটি মুসলমানের হৃদয়ে নিজের জীবনের চেয়ে প্রিয় নবী হজরত মোহাম্মদ (সাঃ) এর প্রতি মহব্বত বেশি রয়েছে। তাই বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে নবী মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে অপমানজনক বক্তব্য কোনো মুসলিম সহ্য করতে পারে না। তাই ভারত সরকারকে বিজেপির এমন কটুক্তিকারী নেতাদের দ্রুত সময়ের মধ্যে বিচারের আওতায় এনে ফাঁসির দাবি জানাই।

পরিশেষে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানানিয়ে বলা হয়, সংসদে নিন্দা প্রস্তাব করে ৯০ শতাংশ মুসলমানের কলিজা শীতল করুন। উগ্র ও সন্ত্রাসী মনোভাবাপন্ন ভারতের সাথে সকল অর্থনৈতিক ও কুটনৈতিক সম্পর্ক বয়কট করুন। এতে বিশ্বের দ্বিতীয় মুসলিম দেশ হিসেবে পরিচয় ও স্বীকৃতি বজায় রাখবে বাংলাদেশ।