রংপুর বিভাগে পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য বিশেষ বরাদ্দের আহবান

প্রকাশিত: ১১:১৭ অপরাহ্ণ, জুন ৭, ২০২২

আব্দুল্লাহ আল আমিন।।
রংপুর বিভাগের পিছিয়ে পড়া মানুষের উন্নয়নে বিশেষ বরাদ্দের দাবিতে “কেমন বাজেট চাই” শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের বাজেটে রংপুর বিভাগের বিশেষ বরাদ্দ রাখার পাশাপাশি বিভাগের শিল্পায়নে আলাদা ঋণ, কর ও ভ্যাট নীতি প্রণয়নের বিষয়গুলো অন্তভূক্তের আহবান জানিয়েছেন গোল টেবিলের বক্তারা।

মঙ্গলবার (৭ জুন) সকালে নগরীর আরএমসিসিআই’র হলরুমে মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সহযোগিতায় গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করেন রংপুর সিটি প্রেসক্লাব।

বাজেট বৈঠকে বক্তারা বলেন, বাজেটের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সমূহ অর্জনের নিমিত্তে বেসরকারী বিনিয়োগে প্রাণ ফেরানো, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রাখাসহ আঞ্চলিক বৈষম্য নিরসনে সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনা ইতিবাচক সুফল বয়ে আনতে পারে। দেশের ৮ ভাগের ১ ভাগ জনগোষ্ঠি বাস করে রংপুর বিভাগে। বরাবরই বাজেটে সবচেয়ে পিছিয়ে থাকে এই বিভাগ। দেশের মধ্যে সবচেয়ে দরিদ্র ৩ জেলার মধ্যে রংপুর বিভাগের কুড়িগ্রাম ও দিনাজপুর জেলা। অথচ বাাজেটে রংপুর বিভাগের উন্নয়নে বিশেষ বরাদ্দ রাখা হয়না। তাই এবারে রংপুরের উন্নয়নে বিশেষ বরাদ্দসহ বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়াতে সরকারকে সহায়ক নীতি ও বাস্তবসম্মত কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের আহ্ধসঢ়;বান জানানো হয় বৈঠক থেকে।

বৈঠকে বক্তারা আরো বলেন, শুধু কর বা ভ্যাট কমালেই যে বিনিয়োগ বাড়বে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। ব্যবসা সহজীকরণ সূচক, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, গ্যাস-বিদ্যুতের সহজলভ্যতার বিষয়গুলো মেটাতে না পারলে বিনিয়োগ কখনোই বাড়বে না। রপ্তানিমুখী ও বৃহৎ শিল্প প্রণোদনা প্যাকেজের সুবিধা পেলেও অনানুষ্ঠানিক খাত, কুটির, অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প খাত (সিএমএসএমই) ও কৃষি খাত আজো উপেক্ষিত।

বৈঠকে সিটি প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বপন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবীর মানিক এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সুজন জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন, সরকারী বেগম রোকেয়া কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক আজহারুল ইসলাম দুলাল, মেট্রোপলিটন চেম্বারের প্রেসিডেন্ট রেজাউল ইসলাম মিলন, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট গোলাম জাকারিয়া পিন্টু, পরিচালক এস এম রুবায়েত ফারমান, সাব্বির আহমেদ, মোঃ আসলাম, আতিকুল্লাহ, রুবায়েত হোসেন খান, রেজাউল করিম প্রমূখ। এ সময় বৈঠকে রংপুরের ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।