তারাকান্দায় ইউএনও’র মানবিকতায় হুইল চেয়ার পেয়ে খুশী প্রতিবন্ধী সাজন

প্রকাশিত: ১:৩০ পূর্বাহ্ণ, মে ১১, ২০২২

আরিফ রববানী, ময়মনসিংহ।।
ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা ডৌহাতলি গ্রামের একটি ঝুপড়ি ঘরে বসবাস করে শারীরিক প্রতিবন্ধী সাজন। শারিরীক সমস্যা তাই চলাফেরা করতে পারেনা। বাবা বৃদ্ধ হতদরিদ্র রহম আলী।বয়সের ভাড়ে তিনিও কিছু করতে পারে না।সংসার চলে প্রতিবন্ধী সাজনের স্ত্রীর গাভী পালনের মাধ্যমে। শুধু তাই নয়, একটি হুইল চেয়ারের অভাবে সাজন ঘর থেকে বের হয়ে সূর্যের আলো দেখতে পারছিলেন না। আয়-রোজগার না থাকায় এক বেলা খেলে দু-বেলা উপোষ থাকতে হয় শারীরিক প্রতিবন্ধী মোঃ সাজনের পরিবারকে। টাকার অভাবে ঘরের অবস্থাও জরাজীর্ণ, মেরামত করতে পারছেনা।

এসব বিষয় জানার পর মাননীয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জনাব শরীফ আহমেদ এমপি এর নির্দেশনানুযায়ী সাজনের করুণ পরিণতি থেকে সাজনকে মুক্ত করতে ইউএনও মিজাবে রহমত প্রতিবন্ধী মোঃ সাজনকে একটি হুইল চেয়ার উপহার দেন। একই সাথে প্রতিবন্ধী সাজনকে প্রতিবন্ধী ঋণ কার্ড ও ভাতার ব্যবস্থা করে দেওয়ার আশ্বাস দেন ইউএনও মিজাবে রহমত ।

এসব উপহার প্রদানকালে ইউএনও মিজাবে রহমত ছাড়াও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড ফজলুল হক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, তারাকান্দা শাখার সভাপতি বাবু প্রদীপ চক্রবর্তী রনু ঠাকুর, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার রুবেল মন্ডল,সহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ওয়ার্ডের মেম্বার ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিবন্ধী সাজন হুইল চেয়ার এবং ঋণ কার্ড ও বিভিন্ন সহযোগীতার আশ্বাস পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করাসহ মাননীয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জনাব শরীফ আহমেদ এমপি, ইউএনও, সমাজ সেবা কর্মকর্তা, চেয়ারম্যান, মেম্বারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। অসহায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তি সাজনকে উপহারসামগ্রী প্রদান করায় এলাকার তৃনমূল লোকেরা ইউএনও মিজাবে রহমত এর প্রশংসা করছেন।

ইউএনও’র মাধ্যমে তার চাওয়া পূরণ হওয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজাবে রহমত এর প্রতি খুশী প্রতিবন্ধী সাজন ও তার পরিবার।